সাঁথিয়ায় একাধীক নারী ধর্ষণের অভিযোগে সেতু এখন শ্রী ঘরে

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৯ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২১

পিপ : পাবনায় ২টি বিবাহ বিচ্ছেদসহ বিভিন্ন মেয়েদের সাথে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দেহ ভোগ করা নারী ভক্ষণকারী সেতু এখন শ্রী ঘরে। অবশেষে ভূক্তভোগীদের অভিযোগে ধর্ষণ মামলায় বৃহস্পতিবার রাতে তাকে আটক করে ঈশ্বরদী থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে র‌্যাবÑ১২। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে শুক্রবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান। সেতু পাবনার সাঁথিয়া পৌরসভাধীন বোয়াইলমারী গ্রামের আকরামের ছেলে ও সাঁথিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ারের আপন ভাগীনা।
থানা পুলিশ ও ভূক্তভোগীর অভিযোগে জানা গেছে, ঈশ্বরদীর মেয়ে রুবির (ছদ্মনাম)সাথে ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয় পাবনার সাঁথিয়া পৌরসভাধীন বোয়াইলমারী গ্রামের আকরামের ছেলে আনিসুজ্জামান সেতুর। সেই সুত্র ধরে গত মার্চে সেতু বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই মেয়েকে হোটেলে নিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে বিষয়টি ওই মেয়েটির পরিবার জানতে পেরে সেতুর পরিবারের নিকট বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে গেলে তারা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে ফিরিয়ে দেয়। শেষে উপায়ন্তর না দেখে ভুক্তভোগী ধর্ষিতা বাদী হয়ে ইশ্বরদী থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দেন। পরে বৃহস্পতিবার রাতে সেতুকে র‌্যাব-১২ তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে ঈশ্বরদী থানায় সোপর্দ করেন।
অপরদিকে পাবনা সদরের এক নারীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার নিকট থেকে ব্যবসার উদ্দেশ্য ৫ লাখ টাকা নেয়। তাতে ব্যবসার লভ্যংস দেয়ার কথা থাকলেও তা দিচ্ছে না। এমনকি আসল টাকা গুলোও দিচ্ছে না। টাকা চাইতে গেলে খুন জখমের হুমকি দিচ্ছে বলে পাবনা সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন।
ঈশ্বরদি থানার অফিসার ইনচার্জ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সেতুর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রাথমিক তদন্তে সত্যতা পাওয়ায় তাকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এর আগে সেতু পর পর ২ জন স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়েছে। পাবনা সদর থেকে আরও একটি মেয়ে এসেছিল সেতুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে। যেহেতু ঘটনাস্থল পাবনা সদরে সেহেতু অভিযোগ সদর থানায় দিতে হবে। সেতুর কাজই হচ্ছে বিয়ে করে কিছুদিন রেখে পরে ডিভোর্স দেয়া ও মেয়েদের সাথে পরিচয় করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাদের সাথে শারিরিক সম্পর্ক করা।