গোপালপুর প্রভাতী পরিষদ যুব সংঘের আয়োজনে ঈদ পুনঃমিলনী ও প্রিতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:০৮ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২১

তানভীর ইসলাম
পাবনায় গোপালপুর প্রভাতী পরিষদ যুব সংঘের উদ্যোগে ঈদ পুনঃ মিলনী ও প্রিতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছে।
পৌর ১ ও ২ নং ওয়ার্ডের খেলোয়াড় বৃন্দের ছয়টি দল পাবনা পুলিশ লাইন্স প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত দুই দিন ব্যাপী টুর্ণামেন্টে অংশ গ্রহণ করেন।
গত পরশু সোমবার সকাল ১০ টায় পাবনা পুলিশ লাইন্স প্রাঙ্গনে গোপালপুর প্রভাতী পরিষদ যুব সংঘের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ঈদ পুনঃ মিলনী ও প্রিতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল।
বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে গত ১৯ মে অনুষ্ঠিত দুই দিন ব্যাপী ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সমাপনী দিনে বিজয়ী খেলোয়াড় বৃন্দ্রের হাতে ট্রফি ও ম্যাডেল তুলে দেন পাবনা ৫ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স। সম্মানিত অতিথি বৃন্দের মাঝে উপস্থিত ছিলেন পাবনার পুলিশ সুপার মোঃ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন, পৌরসভার চেয়ারম্যান শরিফউদ্দিন প্রধান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য মাঝহারুল ইসলাম মানিক, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আসম আব্দুর রহিম পাকন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হাসান শাহিন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাজাহান মামুন, কামরুজ্জামান রকি, ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রমজান আলী চাঁদু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সংগ্রামী সহসভাপতি আব্দুল আজিজ, এবং একই কমিটির সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রুমন।
ঈদ পুনঃ মিলনী ও দুই দিন ব্যাপী ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন সাবেক সংগ্রামী ছাত্রনেতা আনিসুজ্জামান দোলন।
উক্ত আয়োজনে পাশ্ববর্তী এলাকার অংশ গ্রহণে ৬টি দলের মাঝে উপস্থিত ছিল গোপালপুর গ্লাডিয়েটর, গোপালপুর রয়েলস, গোপালপুর নাইটস, গোপালপুর ওরিয়োর্স, গোপালপুর চ্যালেঞ্জার্স ও গোপালপুর ডিফেন্ডারর্সের অর্ধশতাধিক খেলোয়াড় বৃন্দ।
এসময় সম্পুর্ন খেলোয়াড় বৃন্দের মাঝে বিভিন্ন সহযোগীতায় ছিলেন সাবেক ছাত্রলীল নেতা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ পাবনা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাদ্দাম হোসেন, আতিকুল ইসলাম পান্না, সিক্ত, মেনোন, সোহেল, রাজু প্রমুখ ভলেন্টিয়াররা বৃন্দ।
টুর্নামেন্টের সমাপনী সন্ধায় এলাকা ভিত্তিক প্রিতি বনভোজনের আয়োজন করেন অনুষ্ঠানের নেতৃবৃন্দ।