করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে চাটমোহর উপজেলা প্রশাসনের প্রশংসনীয় ভূমিকা

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৫১ অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০২১

চাটমোহর সংবাদদাতা
করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে পাবনার চাটমোহর উপজেলা প্রশাসন প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে চলেছে। করোনাকারীন সময়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সৈকত ইসলামের নেতৃত্বে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রাত-দিন উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন। লকডাউনের শুরুতে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কৌশল নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ একাধিক সভা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে গণসচেতনতা বাড়ানোর পাশাপাশি সরকারি সকল প্রকার নির্দেশনা পালনে কাজ করছেন। করোনা প্রতিরোধে গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে লিফলেট বিতরণ ছাড়াও সাধারণ মানুষের মধ্যে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন। এছাড়া করোনাকালীন সময়ে কর্মহীন,হতদরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে। শুধু তাই নয় কঠোর লকডাউনে সাধারণ মানুষকে ঘরে রাখতে এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.সৈকত ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোছাঃ শারমিন ইসলাম দির-রাত পরিশ্রম করে চলেছেন। একইসাথে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা ও প্রধানমন্ত্রীর অনুদান ও উপহার প্রদানে স্বচ্ছতা বজায় রাখতে কাজ করছেন। করোনা প্রতিরোধে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে পরিচালনা করা হচ্ছে ভ্রাম্যমান আদালত। শুধু তাই নয় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে পুকুর খনন ও ফসলি জমি কেটে মাটি বিক্রির বিষয়ে প্রশাসন তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন। ইতোমধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) একাধিক ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছেন।
উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি পুলিশ প্রশাসন করোনাকালীন সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছেন। পুলিশ প্রশাসন জনসাধারণকে সচেতন করতে সার্বক্ষনিক মাঠে রয়েছে। সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন ও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা জনগণকে মাস্ক ব্যবহার করতে উদ্বুদ্ধ করছেন। করোনাকালীন সময়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ সর্বদা নজর রাখছেন।
এদিকে চাটমোহর পৌরসভার মেয়র এ্যাড.সাখাওয়াত হোসেন সাখোর নেতৃত্বে পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় লিফলেট,মাস্ক,স্যানিটাইজার,সাবান বিতরণের পাশাপাশি প্রতিটি মহল্লায় জীবানুনাশক ওষুধ স্প্রে করছেন। পৌর মেয়র মাঠে থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সাধারণ মানুষকে সচেতন করছেন। এসকল কারণে চাটমোহরে নিয়ন্ত্রষে রয়েছে মহামারী করোনাভাইরাস।
উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে,চাটমোহরে এ পর্যন্ত ৭৩ কনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ৬৪ জন সুস্থ হয়েছেন। অন্যরা হোম কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসাধীন আছেন।
চাটমোহর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান,লকডাউনের শুরু থেকেই পুলিশ মাঠে রয়েছে। উপজেলার সর্বত্র মানুষকে সচেতন করতে পুলিশ কাজ করছে। মাস্ক ব্যবহার করতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেতে হলে সবাইকে আগে সচেতন হতে হবে।
চাটমোহর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মোঃ আঃ হামিদ মাস্টার বললেন,আমাদের সবাইকে সরকারি নির্দেশনা মানতে হবে। লকডাউনের শুরু থেকে উপজেলা প্রশাসন সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করছে। তিনি জানান,করোনাকালীন সময়ে আমরা সাধারণ মানুষের পাশে আছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানবিক সহায়তা অব্যাহত রেখেছেন। আমরাও নানাভাবে সহায্য-সহযোগিতা করছি। চাটমোহরের কোন মানুষ না খেয়ে থাকবেন না। তবে সবাইকে মাস্ক পরিধান করতে হবে। সরকারি নির্দেশনা মানতে হবে।