চাটমোহরে কলাচাষীরা লাভের মুখ দেখছেন


চাটমোহর প্রতিনিধি
পবিত্র রমজান মাসে কলার ব্যাপক চাহিদা থাকায় পাবনার চাটমোহরে কলাচাষীরা লাভের মুখ দেখছেন। কলার ফলনেও চাষীরা খুশি। লাভজনক ফসল হওয়ায় চাটমোহরে বাড়ছে কলা চাষ। করোনাকালে ও পবিত্র রমজানে বাজারে কলার ব্যাপক চাহিদা থাকায় চাষীরা ভালো দাম পাচ্ছেন। চাটমোহরের হাট-বাজারে এখন চড়াদামে কলা বিক্রি হচ্ছে।
গতকাল শনিবার উপজেলার গুনাইগাছা কলাহাটে গিয়ে দেখা যায়,হাটে প্রচুর কলার আমদানী। অনেকে অপক্ত কলা কেটে হাটে নিয়ে এসেছে ভালো দাম পাওয়ার আশায়। গুনাইগাছার কলাচাষী আফতাব হোসেন জানালেন,তার বাগানে শতাধিক শবরী কলা গাছ রয়েছে। হাটে এক কান্দি কলা বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা থেকে ৩০০ শত টাকায়। এক পণ কলার দাম (৮০ হালিতে এক পণ) প্রকারভেদে ২৪০ টাকা থেকে ৫ শত টাকা পর্যন্ত। কলার দাম ভালো পাওয়ায় তারা খুশি।
কলার ব্যাপারী চাটমোহরের রফিকুল ইসলাম জানান,তারা কান্দি হিসেবে কলা কেনেন। পরে সে কলা পাকিয়ে পণ বা হালি হিসেবে বিক্রি করেন। তিনি জানান,এবারে কলার দাম দিগুণ হয়েছে।
খুচরা পাকা কলা বিক্রেতা বকুল হোসেন জানান,এক হালি কলা ১৬ টাকা থেকে ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। রোজার সময় কলার চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় দামও বেড়ে যায়।
চাটমোহর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ এ এ মাসুমবিল্লাহ জানান,চাটমোহরে ৯০ হেক্টর জমিতে কলার আবাদ হচ্ছে। এটা কিছুটা বাড়তে পারে। তাছাড়া জমির আইন,বাড়ির আঙিনায় বিচ্ছিন্নভাবে কলাচাষ হচ্ছে। তিনি বলেন,বাজারে কলা বিক্রি হয় হালি হিসেবে। কিন্তু কৃষি বিভাগের হিসাবে মে,টনে। তাতে এবার কলার ফলন বেশ ভালো।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *