আমিনপুরে দেশি অস্ত্র ও নকল ওষুধ তৈরির কারখানার সন্ধান

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪২ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০২১

বেড়া প্রতিনিধি : পাবনার বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার নাটিয়াবাড়িতে সোমবার (৮ মার্চ) বিকেলে দেশি অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান মিলেছে। সেখান থেকে ৪টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম ও বিপুল পরিমান নকল ওষুধ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে অস্ত্র ও ওষুধ তৈরির দুই ‘কারিগর’কে।
ঘটনাস্থল থেকে পাবনার পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান জানান, অস্ত্র তৈরির কারখানা থেকে ৪টি রিভলভার ও অস্ত্র তৈরির কাজে ব্যবহৃত ড্রিল মেশিন, পাইপ, লোহা কাটার ব্লেড ও প্লায়ার্সসহ বিভিন্ন ধরনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমান নকল ওষুধও উদ্ধার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা হলেন- উপজেলার নতুনভারেঙ্গা গ্রামের মৃত মোকসেদ আলীর ছেলে আব্দুল্লাহ আল মনসুর মিন্টু (৪৩) ও রাজনারায়নপুর গ্রামের হানিফ কাজীর ছেলে আব্দুল্লাহ আল সিয়াম (১৯)। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অস্ত্র ও ওষুধ তৈরির কারখানার মূল কারিগর রাজনারায়নপুর গ্রামের আবু বকরের ছেলে মেহেদী হাসান শোভন (২২) পালিয়ে যায়। পালিয়ে যায় শোভনের বাবা আবু বকর ও চাচা আব্দুল মজিদও।
পুলিশ সুপার আরও বলেন, আমিনপুর থানাধীন জাতসাখিনী ইউনিয়নের নাটিয়াবাড়ি এলাকায় দেশি অস্ত্র তৈরির একটি কারখানা আছে-এই খবরের ভিত্তিতে সোমবার বিকেলে নাটিয়াবাড়ি এলাকার শাহআলম মার্কেটের আন্ডারগ্রাউন্ডে পাবনা জেলা পুলিশের (গোয়েন্দা বিভাগ) একটি দল অভিযান চালায়। অভিযানের একপর্যায়ে ওই অস্ত্র কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়। এ সময় প্রথমে অস্ত্রের কারিগর আব্দুল্লাহ আল মনসুর মিন্টু ও আব্দুল্লাহ আল সিয়ামকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের কারখানা থেকে অস্ত্র ও নকল ওষুধ উদ্ধার করা হয়।
স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, নাটিয়াবাড়ির প্রভাবশালী ব্যক্তি আবু বকরের ছেলে শোভন সহযোগিদের নিয়ে অস্ত্র তৈরি করে সন্ত্রাসী, অস্ত্র ব্যবসায়ী ও ডাকাতদের কাছে বিক্রি করে আসছিলেন। আর এসব অস্ত্র দিয়ে এলাকার বিভিন্ন স্থানে অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। এ খবর লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।