যদি বর্ষে মাঘের শেষ, ধন্যি রাজার ধন্যি দেশ

ঈশ্বরদীতে সকাল থেকেই বৃষ্টি

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২২

শেষ মাঘে বৃষ্টি ঝরছে পদ্মাপাড়ের ঈশ্বরদীতে। মাঘের এই বৃষ্টি ডাল জাতীয় ছাড়া সকল ফসল, লিচু, আম এবং সবজির জন্য খুবই উপকারী। তাইতো প্রবাদ রয়েছে, ‘যদি বর্ষে মাঘের শেষ, ধন্যি রাজার ধন্যি দেশ’।

কৃষি অফিসের মতে, দীর্ঘ খরা ও বৃষ্টিহীন শীতে প্রকৃতি যখন রু হয়ে ওঠে, তখন হালকা বর্ষণ ফসলের মাটি রসালো হয়ে উপকার বয়ে আনে। এজন্য শুক্রবারের (৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকেই অঝোর ধারার বৃষ্টিতে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে।

ঈশ্বরদীতে বৃষ্টি মূলত: বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ২টার পর থেকে শুরু হয়েছে। প্রথমদিকে বৃষ্টির পরিমাণ ছিলো কম। সকাল থেকে বৃষ্টি কখনো গুঁড়ি গুঁড়ি, আবার কখনো মাঝারি বর্ষণ হচ্ছে ঈশ্বরদীসহ আশেপাশের এলাকায়। সাথে বইছে দমকা হাওয়া।

আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকায় বিকেল ৩টা পর্যন্ত সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। ভোরে প্রথমে কুয়াশায় ঢেকে যায় প্রকৃতি। এরপরে আকাশ ঢেকে যায় কালো মেঘে। থেমে থেমে বৃষ্টি ঝরছে আষাঢ়ের। লাগাতার বৃষ্টিতে দুর্ভোগে পড়েছেন শহরের সাধারণ মানুষ। রাস্তায় বের হলেও যানবাহন কম থাকায় গন্তব্যে পৌঁছাতে দীর্ঘ সময় সড়কে অপেক্ষা করছে হচ্ছে অনেকে। বৃষ্টির কারণে এরই মধ্যে অনেক নিচু রাস্তা জলমগ্ন হয়ে গেছে। এতে পথচারীদের দুর্ভোগ বেড়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার মিতা সরকার বলেন, মাঘের শেষে এই বৃষ্টি আর্শিব্বাদ। ডাল জাতীয় বেশীর ভাগ ফসলে ফুল আশায় কিছুটা ক্ষতির সম্ভাবনা থাকলেও অন্যান্য সকল ফসলের জন্য এই বৃষ্টি আর্শিব্বাদ। দীর্ঘদিন শুস্কতার কারণে মাটিতে রস ছিলো না। বৃষ্টিতে মাটি রসালো হলে ভূট্টা, গম ও ধান এবং এর সাথে লিচু ও আমের জন্য অনেক উপকার হবে। মাঠে থাকা শীতকালীন সবজির জন্য ভালো মাঘের শেষের এই বৃষ্টি।

ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস জানায়, রাত থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত ২৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আর বৃষ্টির কারণে শীতের তীব্রতাও বেড়েছে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।