ঈশ্বরদীতে সরিষা ফুলের মধু সংগ্রহে ব্যস্ত মৌচাষিরা

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৩৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২২

মাঠজুড়ে সরিষার হলুদ ফুলের সৌন্দর্যে মন জুড়িয়ে যায়। এরইমধ্যে সরিষা ফুলের মধু সংগ্রহে ব্যস্ত রয়েছে মৌচাষিরা। ঈশ্বরদীর মাঠে মাঠে চলছে মধু সংগ্রহের কাজ। সৌন্দর্য্যের সাথে সাথে এখন মধুতে ভরপুর সরিষার ক্ষেত ।

মধু সংগ্রহের জন্য কাঠ ও স্টিল দিয়ে বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে মধু সংগ্রহের বাক্স। উপরের অংশটা কালো রঙের পলিথিন ও চট দিয়ে ডাকা থাকে। বাক্সের ভেতরে কাঠের তৈরি ফ্রেমের সাথে মোম দিয়ে তৈরি ৬-৭টি মৌচাকের ফ্রেম রয়েছে। সরিষা ক্ষেতের পাশে সারিবদ্ধভাবে রাখা হয়েছে মধু সংগ্রহের বাক্স। বাক্সের ভেতর রয়েছে একটি রাণী মৌমাছি। রাণী মৌমাছির আকর্ষণে সরিষা ফুল থেকে মধু সংগ্রহ করে হাজারো পুরুষ মৌমাছি বাক্সের ভেতরের চাকে মধু জমা করে। আর এই চাক থেকেই প্রতিদিন মৌ-চাষিরা সংগ্রহ করছেন মধু। ঈশ্বরদীর ৭টি ইউনিয়নের মাঠে সরিষার ক্ষেতে মধু সংগ্রহের এই চিত্র দেখা গেছে।

মধু সংগ্রহের জন্য সাতক্ষিরা থেকে এসেছেন মৌচাষি আসিকুর রহমান। তিনি বলেন, কয়েকজন মিলে ঈশ্বরদী উপজেলায় মধু সংগ্রহ করতে এসেছেন। উপজেলার পতিরাজপুর গ্রামের সরিষা ক্ষেতে ১৫০টি বাক্স বসিয়েছেন। এসব বাক্স থেকে প্রতি সপ্তাহে গড়ে প্রায় ৩০০ কেজি মধু সংগ্রহ করছেন। অন্যান্য মাঠে আরও মৌচাষীরা বিপুল পরিমাণ মধু সংগ্রহে ব্যস্ত রয়েছেন বলে জানান তিনি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মিতা সরকার বলেন, সরিষা ক্ষেতে মৌমাছির চাষ হলে সরিষার ফলন ১০-২০ ভাগ বেড়ে যায়। ফলনও ভালো হওয়ার কারণে সরিষা চাষীরাও সহযোগিতা করেন। বিনা খরচে সরিষা ক্ষেত থেকে মধু সংগ্রহ লাভজনক ব্যবসা। এতে একদিকে মৌচাষীরা মধু বিক্রি করে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছেন, অপরদিকে সরিষার ফলনও বাড়ছে।