ঈশ্বরদীর উন্নয়ন কর্মকান্ড গতিশীল করায় জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন এমপি নূরুজ্জামান বিশ্বাস

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

‘জনগণের ভালোবাসায় আমি সিক্ত হলাম। জনগণের এই ভালোবাসা আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করছি।’

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা নূরুজ্জামান বিশ্বাস ঈশ্বরদী ও আটঘোরিয়ার কয়েকটি উন্নয়ন কর্মকান্ড গতিশীল করে নিজ বাড়ি আসার পথে মুলাডুলিতে এবং ঈশ্বরদী পুরোতন বাসষ্ট্যান্ডে হাজারও মানুষের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত নাগরিক গণসংবর্ধনায় একথা বলেছেন।

Dailyvision24.com

গণসংবর্ধনার আগে মুলাডুলিতে হাজারও মানুষের উপস্থিতিতে ফুলেল শুভেচ্ছা শেষে স্মরণকালের বিশাল মোটর সাইকেল শোভাযাত্রা সহকারে সাংসদ নূরুজ্জামান বিশ্বাসকে ঈশ্বরদী পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন মাহবুব খান স্মৃতি মঞ্চের গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানস্থলে নিয়ে আসা হয়। আওয়ামীলীগ, শ্রমিক লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সাথে সাথে ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব এবং সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন তাঁকে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানান।

Dailyvision24.com

গণসংবর্ধনায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব আলী বিশ্বাস। সঞ্চালনা করেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু ও কৃষকলীগের যুগ্ম সম্পাদক মুরাদ মালিথা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ নূরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, আজকে সর্বস্তরের মানুষের অকৃত্তিম ভালোবাসায় আমি সিক্ত ও ধন্য হলাম। আওয়ামী লীগ ও অংগ সংগঠনের সাথে সাথে আপামর জনতা আজ আমাকে অসীম ভালোবাসা দেখিয়েছেন। যানজটের কারণে আমার পৌঁছাতে দেরী হলেও হাজার হাজার মানুষ বৃষ্টিকে উপক্ষা করে আমার জন্য অপেক্ষা করেছেন। এজন্য আমি আন্তরিকভাবে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞ। বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ ও সংগঠনের পক্ষ হতে আমাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। জনতার এই ফুলেল শ্রদ্ধার্ঘ আমি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি উৎসর্গ করছি।

ঈশ্বরদী ও আটঘোরিয়ার জনগণকে আজকে আমি এই প্রতিশ্রুতি দিতে চাই, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রতি অবিচল থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমার শেষ রক্ত বিন্দু দিয়ে হলেও এলাকার উন্নয়নে নিজের জীবনকে উৎসর্গ করতে কুন্ঠাবোধ করবো না।

এসময় এমপি বিশ্বাস আরো বলেন, নৌকা বিরোধী ও স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি, কোনো অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম ও চাঁদাবাজ আমার কাছে প্রশ্রয় পাবে না। ঈশ্বরদীর আওয়ামী লীগে নৌকা বিরোধী ও রাজাকারের সন্তানদের স্থান হবে না। নারী নির্যাতনকারী ও ধর্ষকের স্থান ঈশ্বরদীর মাটিতে হবে না।

এমপি বলেন, ঈশ্বরদীর উন্নয়নের জন্য ঢাকায় বিভিন্ন স্থানে দৌঁড়ে বেরিয়েছি এবং দেন-দরবার করেছি।। ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন ষ্টেশন আধুনিকায়ান, রেলগেটে ফ্লাইওভার নির্মাণ, শেখ কামাল আইসিটি সেন্টার নির্মাণ, সাঁড়ায় নৌবন্দরসহ ইতোমধ্যেই বেশ কিছু উন্নয়নে কর্মকান্ড বাস্তবায়নের জন্য সরকারের উচ্চ পর্যায়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। ঈশ্বরদী বিমানবন্দর চালুর বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। ইনশাল্লাহ বিমানবন্দরও চালু হবে।

বিশিষ্ঠ শিক্ষাবিদ অধ্যাপক উদয় নাথ লাহিড়ী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ রশিদুল্লাহ, গোলাম মোস্তফা চান্না মন্ডল, আলাউদ্দিন প্রামাণিক, পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল আজিজ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, আতিয়া ফেরদৌস কাকলি, শিল্প ও বণিক সমিতির সহ-সভাপতি ইউনুস আলী মিন্টু, সকল ইউনিয়ন ও ওযার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, ইউপি চেয়ারম্যান, ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক স্বপন কুমার কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেনসহ দলীয় ও অংগ সংগঠনের নেতা-কর্মী এবং হাজার হাজার সাধারণ জনগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।