লকডাউনের ঘোষণা শুনে ঈশ্বরদী বাজারে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২১

করোনা সংক্রমণ ফের বৃদ্ধি পাওয়ায় আগামী সোমবার থেকে পুরো দেশজুড়ে সাত দিন ব্যাপী কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। লকডাউনের ঘোষণার পর একদিনে আগেই শনিবার ঈশ্বরদী ও আশেপাশের বাজারে বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড় বেড়েছে বেচাকেনা।

ঈশ্বরদী ইপিজেড এর একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন শহীদুল আলম, অন্যান্যদের মতো অতিরিক্ত ঝামেলা এড়াতে এবার বাজারের ঝামেলা আগেই সেরে নিচ্ছেন। লকডাউনে পন্যের মূল্য বৃদ্ধির শঙ্কা থাকে। যদি একদিন পরে মানে কাল বাজার করতে দেখা যাবে অনেক পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। তাই কেনাকেনটা করে রাখাটা আমার কাছে সুবিধা মনে হচ্ছে। এছাড়া লকডাউনে বের হয়ে সড়কে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে চাই না কেনো বেড় হয়েছি।
ঈশ্বরদীর পাইকারি কাঁচাবাজারে ক্রেতারা ভিড় করে তড়িঘড়ি করে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কেনাকাটা করতে দেখা যায়।

বিক্রেতারা বললেন, আজ এমনি ছুটির দিন তারপর সোমবার থেকে লকডাউন। সব মিলিয়ে সকাল থেকে বাজারে বিক্রি বেড়েছে।

মুদিদোকান গুলোতে ক্রেতারা নিত্যপণ্যই বেশী কিনেছেন আজকে । চাল, ডাল, তেল, লবণ, মসলা, রসুন, পেঁয়াজ, আদা এ পণ্যগুলোই বেশী বিক্রি হচ্ছে। তবে জিনিসপত্রের মূল্য খুব একটা বাড়েনি।

এদিকে ঈশ্বরদীর মনিরপ্লাজা, জাকের প্লাজা, বঙ্গবন্ধু সুপার মার্কেটসহ কাপড়ের বাজারেও ক্রেতার ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। এরইমধ্যে ঈদের কেনাকাটাও চলছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে দেশে আগামী সোমবার থেকে টানা সাত দিন কঠোর লকডাউন চলবে। গতকাল শুক্রবার রাতে তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকা, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়া যাবে না। গতকালের ঘোষণায় নিত্যপণ্যের দোকান বা বাজার খোলা না বন্ধ থাকবে, সে ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।