ঈশ্বরদীতে প্রতিবন্ধী যুবকের মরদেহ উদ্ধার : নারী গ্রেফতার

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:১০ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৫, ২০২১

ঈশ্বরদীতে চাপা হোসেন (৩০) নামে এক প্রতিবন্ধী ভিক্ষুকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) দিবাগত রাতে সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়াপাড়া পশ্চিম গ্রামের মানিক সরদারের বাড়ি থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত যুবকের বাড়ি চাটমোহরে। ভ্যানে চড়ে ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

এলাকাবাসী বলছে এটি একটি হত্যাকান্ড। এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ছামেলা খাতুন (৪০) নামে এক মহিলাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ছামেলা খাতুন আওতাপাড়া গ্রামের জাহিদুল সরদারের স্ত্রী। ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, চাপা হোসেন প্রায়ই সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়া পশ্চিম পাড়া গ্রামের ছামেলা খাতুনের শ্বশুর বাড়িতে যাতায়াত করতো। তার সাথে নিরঞ্জন (৩২) নামের চাটমোহর এলাকার আরও এক প্রতিবন্ধী ভিক্ষুকে থাকতো। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা জানান, হয়তো টাকা পয়সার বিষয় নিয়ে ঝামেলা হওয়ায় চাপাকে পরিকল্পিতভাবে বাড়িতে ডেকে নিয়ে হত্যা করা করেছে ছামেলা খাতুনসহ তার পরিবার।

গভীর রাতে লাশ গুম করার পরিকল্পনা ফাঁস হলে স্থানীয় বাসিন্দা ছাইদার হোসেন সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চৌকিদার রহিদুল্লাহ্কে সাথে নিয়ে মানিক সরদারের বাড়িতে যায়। এসময় তাদের বাড়ির ভেতরে ঢুকতে বাঁধা দেয়া হয়। পরে তারা ঈশ্বরদী থানা পুলিশকে জানালে ঈশ্বরদী থানার ওসি আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশটি উদ্ধার করে। এঘটনায় ছামেলা খাতুনকে পুলিশ আটক করলেও বাড়ির অন্য সদস্যরা পালিয়ে যায়।