পদ্মা ওয়েল কোম্পানীর বিরুদ্ধে তেলপাম্পের অনুমোদন না দেয়ার অভিযোগ


 দেশের সর্বোচ্চ আদালতের রায় পেলেও পদ্মা ওয়েল কোম্পানীর বিরুদ্ধে ঈশ্বরদীর বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেনকে তেল পাম্পের অনুমতি  না দেয়াসহ নানা হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে। শনিবার রাতে ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে  পাম্পের মালিক দেওয়ান আমজাদ হোসেন বলেন, ২০১৪ সালে প্রজ্ঞাপন জারীর পর তিনি পদ্মা ওয়েল কোম্পানীর কাছে তেল পাম্পের জন্য আবেদন করেন। দাপ্তরিক সকল কার্য সম্পন্ন করলে বিষয়টি উচ্চতর আদালতে গড়ায়। তিনি দেশের সর্বোচ্চ আদালতের সকল রায় লাভ করলেও অজ্ঞাত কারনে অনুমতি প্রদানে নানা হয়রানীর শিকার হচ্ছেন পদ্মা ওয়েল কোম্পানীর মাধ্যেম। তিনি এ বিষয়টির সমাধানে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সাইদুল ইসলাম  মান্না সরদার,  মমতাজুল হক, আব্দুল করিম, সিদ্দিকুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেন আফজাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সানাউল্লাহ বিশ্বাস প্রমুখ।

এ ব্যাপারে পদ্মা ওয়েল কোম্পানীর মহাব্যবস্থাপক (বিপপন) নুমান আহমেদ তাপাদার বলেন, তার কাগজপত্র আমরা দেখেছি। কাগজপত্রে কোন জটিলতা নেই। সেই কারনেই তিনি পাম্পের অবকাঠামো নির্মাণ করেছেন। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলার পরামর্শ দেন।

সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ব্যবস্থাপনা পরিচালক  মোঃ আবু সালেহ ইকবালের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *