পাবনায় কুষ্টিয়া সীমান্তে অবৈধভাবে বালু উত্তলোনকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশের বিশেষ অভিযান

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৫৪ অপরাহ্ণ, মে ৩, ২০২১

শফিক আল কামাল ॥ পাবনা কুষ্টিয়া সীমান্ত এলাকার শিলাইদাহ পয়েন্টে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে কোটি টাকার বালু উত্তলোন করে আসছে একটি প্রভাবশালী চক্র। এই সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর পাবনা জেলা পুলিশ বালু উত্তলোন কারীদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযানে নামেন।
পাবনার পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম এর নির্দেশনায় সোমবার (০৩’ মে) সকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলমের নেতৃত্বে কৌশলগত কারণে সাদা পোশাকে পুলিশের কয়েকটি চৌকস টিম বালু বহনকারী ট্রাক আসার সুত্রধরে শিলাইদহ পয়েন্টে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বালি উত্তলোন উত্তলোন করা ভেকু ফেলে দস্যুরা পালিয়ে যায়। এর আগে পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নাসিম আহম্মেদ সকাল থেকে ঐ এলাকায় বালুবহনকারী ট্রাক বিষয়ে গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে অভিযান কার্যক্রম সহযোগিতা করেন। অপর দিকে দোগাছী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী হাসান বালির ট্রাক আটকাতে কর্মিদের নিয়ে পুলিশের কাজে সহযোগিতার জন্য এগিয়ে আসেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর এসপি স্যারের নির্দেশে পবিত্র মাহে রমজানের মাঝেও তীব্র গরম উপেক্ষা করে ট্রাকের সুত্রধরে পদ্মার দূর্গম চরে গিয়ে অবৈধ বালু উত্তলোনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান করি। আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বালু দস্যুরা পালিয়ে যায়। এ সময় বালুভর্তি ৭ ট্রাক আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
পাবনার পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান অভিযান বিষয়ে বলেন, পাবনার উপর দিয়ে অবৈধ বালু ভর্তি ট্রাক চলতে দেওয়া হবে না। আগামী দিন থেকে প্রয়োজনে চেকপোস্ট বসিয়ে বালুর ট্রাকসহ অবৈধ কার্যক্রম কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। তিনি আরও জানান, অবৈধ বালু উত্তলোনের সাথে জড়িতরা যত শাক্তিশালী হোক না কেন, তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে। সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধ বালু উত্তলোনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত থাকবে। দেশ ও জাতির কল্যাণকর কাজে পাবনা জেলা পুলিশ সব সময় জনসাধারণের পাশে থাকবে।