লকডাউনের ৮ম দিন পাবনায় চলেছে যানবাহন; ছিলো দোকানপাট খোলা; জনতার সেই ঢল

ডেইলি ভিশন টুয়েন্টিফোর অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২১, ২০২১

রফিকুল ইসলাম ফরিদ
বৈশি^ক মহামারী করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকার ১৪ এপ্রিল বুধবার থেকে কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিলেও পাবনার জনগণ লকডাউনকে তোয়াক্কা না করে হাট-বাজারে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখেই চলাফেরা করছে ইচ্ছামতো। পুলিশ পাবনা শহরের কয়েকটি পয়েন্টে অবস্থান করলেও মানুষের ছিলো উপচে পড়া ভীড়। দূরপাল্লার বাস ছাড়া চলেছে সিএনজি, অটো, চার্জারভ্যান, রিক্সা, মটরসাইকেল, বাই-সাইকেল, ইট, বালু ও মাটিবাহী লাইসেন্সবিহীন ও বাতিবিহীন বিকট শব্দের ট্রলি, ভুটভুটি ও কুত্তাগাড়ী। এতো বিশাল জনতাকে পুলিশের পক্ষে সামাল দেয়া সম্ভব নয়। জনগণকেই সচেতন হতে হবে। গতকাল ২১ এপ্রিল বুধবার পাবনার রাস্তাগুলোতে জনগণ ও যানবাহন চলাচল করেছে মাত্রাতিরিক্ত। অটো, সিএনজিতে, ভুটভুটি, মাইক্রোবাসে মানুষজন ঢাকা, রাজশাহী, নওগাঁ, কুষ্টিয়া, যশোর, সিরাজগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলায় যাতায়াত করছে ভেঙে ভেঙে কোন রকম বাধা বিপত্তি ছাড়াই। শহরের পুলিশের গাড়ী ও ট্রাফিক সার্জেন্টদের সাদা মটর বাইক ছুটে চলছে দ্রুত গতিতে।
পাবনা শহরের প্রায় সব দোকানপাট খোলা ছিলো। ফুটপাতগুলো হকারদের দখলে ছিল। সামাজিক দূরত্ব না মেনেই সবাই গাদাগাদি করে কেনা-কাটা করছেন। লকডাউনের কোন প্রভাবই পড়েনি পাবনায়। গ্রামাঞ্চলের সব দোকানপাট, চা এর দোকান সারাদিন রাতই খোলা। চরঘোষপুর, বুদের হাট, সাকান মার্কেট, কুঠিপাড়া, অনন্ত বাজার, সিংগা, সাধুপাড়া, লাইব্রেরী বাজারসহ সারা পাবনা জেলার বিভিন্ন স্থানে চা এর দোকানে চলছে রঙ্গীন টিভি। জনগণ গাদাগাদি করে দেখছেন রাতভর টিভিতে আইপিএল খেলা ও নাচ-গান। মুখে কারো মাস্ক নেই। নেই কোন স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রবণতা। এভাবে চললে পাবনায় করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাবে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা।