ঈশ্বরদীতে করোনায় একজনের মৃত্যু, গোপনে লাশ দাফন


পিপ : পাবনার ঈশ্বরদীর ছলিমপুর ইউনিয়নের জয়নগর বাবুপাড়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত ব্যক্তি জয়নগর এলাকার জনৈক নুরজামাত প্রামাণিকের ছেলে বিপুল হোসেন (৩৫) । সে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের নিকিমথ কোম্পানির শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিল।
জানা যায়, রূপপুর পারমাণবিকের নিকিমথ এ চাকরিরত অবস্থায় ৫-৬ দিন আগে কোম্পানিতে করোনা পজেটিভ ধরা পরলে তাকে ছুটি দেওয়া হয়। কিন্তু করোনা আক্রান্তের খবর সে বাড়িতে না জানিয়ে চুপচাপ থাকে।
এই অবস্থায় শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে তাকে গত বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) রাতে ঈশ্বরদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । হাসপাতালে শ্বাসকষ্ট নিয়ন্ত্রণ না হয়ে আরো বেড়ে যায়।
এ সময় অক্সিজেন দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে বিপুলকে রাজশাহী মেডিকেলে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত তিনটার দিকে চিকিৎসক মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। রাজশাহী থেকে করোনার পজিটিভ ডেথ সার্টিফিকেট নিয়ে লাশটি জয়নগরে আনা হয়।
এলাকাবাসীরা জানান, বিপুল হোসেনের লাশ বাদ জুম্মা দাফন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরিবারের লোকজন করোনা আক্রান্তের বিষয় গোপন রেখে কাউকে না জানিয়ে সকাল ১১টায় লাশ দাফন করেছেন।
সলিমপুরের সাবেক চেয়ারম্যান ইস্রাইল হোসেন মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আসাদুল হকও করোনায় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
করোনায় মৃত্যুর ঘটনা এবং লাশ গোপনে দাফন করা বিষয় নিয়ে এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবসীরা জানান, ওই পরিবারের লোকজন অবাধে চলাফেরা করছে। তাদের মাধ্যমেও করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশংকা করছেন।
এ বিষয়ে ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির জানান, করোনায় মৃত্যুর এই বিষয়টি আমরা জানি না। এইমাত্র রাত ৯ টার দিকে জানতে পারলাম। ওই পরিবারের কেউ বাড়ির বাইরে বের হলে বা অবাধে চলাফেরা করলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *